কেউ বললো হয়তো এবার আমার মাথাও নিয়ে গেছে

কেউ বললো হয়তো এবার আমার মাথাও নিয়ে গেছে, শুরু হলো মতবিরোধ, কেউ বলে পিশাচ আর

যাই করুক মাথা রেখে যায়। কেউ কিন্তু প্রশ্ন একটা থেকেই যায়, পিশাচ যদি মাথাও নিয়ে যায় তবে কী অন্তত

একটা অঙ্গও ফেলে যাবে না? যেমনটা অন্য সবার বেলায় করেছে। ওদের মধ্যে একজন বৃদ্ধ লোক বললো,

আমার মনে হয় কী আমাদের একবার খুজে দেখা উচিত। যদি কিছু পাওয়া যায়। শুরু হলো খোঁজাখুঁজি  অনেক খোঁজাখুঁজি

আরও ভালবাসার গল্প পেতে ভিজিট করুউঃ todaylawfirm.com

কেউ বললো হয়তো এবার আমার মাথাও নিয়ে গেছে

জঙ্গলের ভেতর গিয়ে সবার চোখে যা পড়লো তাতে সবার মেরুদণ্ড দিয়েই একটা ঠাণ্ডা স্রোত বইয়ে গেল।

একটা মানুষের দেহ পড়ে রয়েছে। দূর থেকে যদিও বোঝা যাচ্ছে না যে মানুষটা জীবিত কি মৃত।

তবে তার থেকেও ভয়ংকর ঘটনা তখনও ঘটা বাকিই ছিলো। সবাই যখন ধীরে ধীরে পড়ে থাকা মানুষটার কাছে গেল

তখন দেখলো এটা আর কেউ নয় কাল যে অচেনা অজানা লোকটার চিৎকার শুনে সবাই ছুটে গিয়েছিলো

এটা তো সেই লোক। কিন্তু এ লোক এখানে আসলো কীভাবে? আর এর হাতে এটা কী একজন সাহস করে জিনিসটা

দেখতে যেতেই আতঙ্কে উঠলো ভয়ে,সাধারণ কোনো জিনিস নয় সাধারণ কোনো জিনিস নয় এর তো

একটা মানুষের চোখ। যেন কোনো জীবিত মানুষের চোখ উপড়ে নিয়েছে লোকটা। আর সেই উপড়ে

নেওয়া চোখটাই প্রাণ পণে আঁকড়ে ধরে আছে নিজেরই

হাতের মুঠোই। দেখে কী মনে হচ্ছে? এমন অবস্থায় কেউ বেঁচে থাকতে পারে ভালো করে দেখো।

বাঁচলেও বাঁচতে পারে। কারণ শরীরের গভীর ক্ষত থাকলেও কেনো জানি মনে হচ্ছে লোকটা বেঁচেই আছে।

লোকটার এই অনুমানটাই কিন্তু সত্যি হলো। সবাই ধরা ধরি করে নদীর দিকটায় নিয়ে গিয়ে চোখ মুখে পানি

ছিঁটা দিতেই লোকটা আস্তে আস্তে চোখ খুললো। একবার চারিদিক তাকালো ভালো করে। তারপর ইশারায়

একজনকে কাছে ডাকলো। লোকটা ভয়ে ভয়ে কাছে যেতেই মৃতপ্রায় লোকটা বিড়বিড় করে বললো,

বেশ কয়েকবার পুরো শব্দটা বলার চেষ্টা করতে গিয়েও বলতে পারে না লোকটা। চোখটা ঠিক তেমন ভাবেই

খোলা থাকলেও দেহে যে আর প্রাণের অবশিষ্ট নেই সেটা বুঝতে অসুবিধে হলো না। কিন্তু লোকটা কে?

কেউ বললো হয়তো এবার আমার মাথাও নিয়ে গেছে

আর কোন্দল এর অর্থই বা কী? কী বলতে চেয়েছিলো লোকটা? তবে কী সে জানতো সবটা? সবার মনেই একই প্রশ্ন ঘুরপাক খেতে লাগলো। কিন্তু কেউই কোনো উত্তর খুঁজে পেল না। একজন বললো,

আমার মনে হয় আমরা গত রাতে লোকটাকে দেখে ভুল ভেবেছিলাম। আরেকজন বললো, হুমম ভেবেছিলাম মরেই গেছে।

তাছাড়া দেহটা একটা দেখেছো? এমন অবস্থায় কেউ বেঁচে থাকতে পারে? আরেকজন আফসোসের স্বরেই বললো, লোকটা অনেক কিছুই জানতো বোধহয়। বলতেও চেয়েছিলো, কিন্তু বলা হয়ে উঠলো না।

কাল যদি বুঝতে পারতাম। আমার মনে হয় লোকটা তখনও বেঁচে ছিলো কিন্তু অজ্ঞান ছিলো। আমরা ভেবেছি মরে গেছে। তাছাড়া ওমন অবস্থায় যে কেউই এমনটাই মনে করতো। যদি কাল রাতেই বুঝতে পারতাম তাহলে অনেক কথায় হয়তো জানা যেত লোকটার কাছ থেকে।

About admin

Check Also

কষ্টের শেষটা যদি সেখানেই হত তাহলে তো ভালোই ছিল

কষ্টের শেষটা যদি সেখানেই হত তাহলে তো ভালোই ছিল

কষ্টের শেষটা যদি সেখানেই হত তাহলে তো ভালোই ছিল, বড় স্বপ্ন নিয়ে বিয়ে না করলেও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *